বিছানায় পাঁচ ব্যায়াম

:ঘুম থেকে উঠে কি করা উচিত? প্রত্যেকের উত্তর প্রত্যেকের থেকে আলাদা হতে পারে, যেমন- কেউ বলবে দাঁত ব্রাশ করা, কফি খাওয়া, গোসল করা, ইত্যাদি। যে যাই বলুক সঠিক উত্তর হল, আমাদের ব্যাক স্ট্রেচিং ব্যায়াম করা উচিত।ডাক্তাররা বলেন, ঘুম থেকে উঠেই তড়িঘড়ি করে বের হয়ে যাওয়ার ফলে হারনিয়েটেড ডিস্ক (মেরুদণ্ডে ব্যথা) সমস্যা তৈরি হয়। তাড়াহুড়ো না করে কিছু সময় পূর্ণ মনযোগের সঙ্গে ব্যাক স্ট্রেচ জাতীয় হালকা ব্যায়াম করা উচিত।এই ব্যায়ামগুলো আপনার সারাদিনকে সফলভাবে কাজে লাগাতে সাহায্য করবে এবং পাশাপাশি আপনার ব্যাক পেইন ও দূর করবে।এক হাঁটুর ব্যায়ামচিত হয়ে শুয়ে এক হাঁটু বুকের কাছে টেনে আনুন এবং তা পাশ ফিরে বাঁকানো ভাবে। মাথার নিচে বালিশ দিয়ে নিলে হয়তো একটু সুবিধা হবে। হাঁটু ধরে এরকম১০ বার করে চেষ্টা করুন।দুই পায়ের সমন্বিত ব্যায়ামচিত হয়ে শুয়ে বুকের কাছে দুই হাঁটু নিয়ে এসে চোখ বন্ধ করে ৬ থেকে ১০ সেকেন্ড নিঃশ্বাস ধরে রাখুন। এরপর পা আবার প্রসারিত করে ধীরে ধীরে নিঃশ্বাস ছেড়ে দিন। এরকম কয়েকবার করুন।নিতম্বের ব্যায়ামচিত হয়ে শুয়ে নিতম্ব দেয়ালের সঙ্গে ঘেঁষে দুই পা দেয়ালের ওপরের দিকে সমান্তরাল রাখুন। যেন পা আর দেহ অনেকটা ৯০ ডিগ্রি সমকোণের মতো হয়। এতেহাঁটুতে একটু আরাম বোধ হবে। নিতম্বের পেশির সুগঠনের জন্য যতটুকু ওপরের দিকে টান করে রাখা যায় ততই ভালো।বসে ব্যায়ামশক্ত জায়গায় বসে হাঁটু ভাঁজ না করে হাত দিয়ে পায়ের শেষ প্রান্ত ধরার চেষ্টা করুন। এরপর হাঁটু ভাঁজ করে আবার পূর্বের অবস্থায় ফিরে আসুন, নিয়মিত চর্চার ফলে ধীরে ধীরে আপনার হিপের চর্বি দূর হয়ে যাবে। ত্রিশ সেকেন্ড করে পাঁচবার করে করুন।পিঠের ব্যায়ামচিত হয়ে শুয়ে একটা টাওয়েলকে গোল করে নাভির বিপরীতে পিঠের নিচে দিন। ধীরে ধীরে হাত এবং পা মেঝের সমান্তরালে ওপরে উঠানোর চেষ্টা করুন, কাঁধ থেকে পাপর্যন্ত টান টান করে রাখুন। একটানা পাঁচ মিনিট করে করুন।তথ্যসূত্র : লিফটার

Followers

Total Pageviews